একই গতিতে অপু বিশ্বাস

apu1চলচ্চিত্রে একটানা লম্বা সময় ব্যবসাসফল ছবি উপহার দিয়েছেন চিত্রনায়িকা মৌসুমী, শাবনূর, পপি ও পূর্ণিমা। এরপর যার নাম আসে তিনি হলেন অপু বিশ্বাস। দীর্ঘ সময় ধরে তিনি নিজের জনপ্রিয়তা ধরে রেখেছেন। অনেক প্রযোজক তার নামের আগে বলে থাকেন নাম্বার ওয়ান সফল নায়িকা। ২০০৪ সালের শেষের দিকে আমজাদ হোসেনের ‘কাল সকালে’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে আসেন তিনি। এরপর ‘কোটি টাকার কাবিন’ ছবিতে প্রধান নায়িকা হিসেবে শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করেন। ছবিটি সুপারহিট হয়। এরপর শাকিবের সঙ্গে জুটি হিসেবে তিনি ‘পিতার আসন’, ‘চাচ্চু’, ‘দাদি মা’, ‘মিয়া বাড়ির চাকর’, ‘জন্ম তোমার জন্য’, ‘মায়ের হাতে বেহেশতের চাবি’, ‘লাভ ম্যারেজ’সহ একাধিক সুপারহিট ছবি উপহার দেন। চলচ্চিত্র অঙ্গনে এক দশক ধরে কাজ করছেন তিনি। এখনও একই গতিতে কাজ করছেন তিনি। নিজের ক্যারিয়ারের এ পর্যায়ে এসে অপু বিশ্বাস মানবজমিনকে বলেন, ভালো ছবি দেখার জন্য দর্শক সব সময় অপেক্ষা করে। খুব বেশি ছবি করার তো প্রয়োজন নেই। সময়োপযোগী বা দর্শক চাহিদা অনুযায়ী ভালো মানের ছবি উপহার দিতে হবে। আমি ছবি করার সময় এই বিষয়টা মাথায় রাখি। এই খারাপ সময়েও তো আমার এ বছর মুক্তি পাওয়া ‘রাজা ৪২০’ ছবিটি দর্শকরা গ্রহণ করেছেন। অপু বিশ্বাস এরই মধ্যে মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজের ‘সম্রাাট’ ও আবদুল মান্নানের ‘পাঙ্কু জামাই’ ছবির কাজ শেষ করেছেন। এ ছাড়া কালাম কায়সারের ‘মা’ ছবির কাজও চলছে। নতুন ছবি হাতে নেয়া প্রসঙ্গে অপু বিশ্বাস বলেন, আমি কয়েকদিনের জন্য বগুড়ায় এসেছি। দুদিন পর ঢাকা এসে ‘পাঙ্কু জামাই’ ছবির ডাবিংয়ের কাজ শুরু করবো। আর ২৬শে এপ্রিল থেকে শামিম আহমেদ রনির ‘বসগিরি’ নামে নতুন ছবির কাজ শুরু করবো। টানা ২রা এপ্রিল পর্যন্ত এফডিসিতেই এ ছবির কাজ রয়েছে। এখানে আমাকে একজন চিকিৎসকের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে। এ ছবির গল্পটিও বেশ ভালো লেগেছে আমার। লিখেছেন আবদুল্লাহ জহির বাবু ও দোলোয়ার হোসেন দিল। এ ছবিতে আমার চরিত্রের নাম জয়া। সামাজিক অ্যাকশনধর্মী ছবি এটি। নিজের শারীরিক গঠন ঠিক রাখার জন্য নিয়মিত ব্যায়াম করেন অপু। অন্য ব্যায়ামাগারে যেন না যেতে হয় এজন্য নিজেই রাজধানীর নিকেতন এলাকায় একটি ব্যায়ামাগার দিয়েছেন। নাম ‘এপিএস লেডিস ফিটনেস ক্লাব’। এ প্রসঙ্গে অপু বিশ্বাস বলেন, শুটিংয়ের অবসরে অন্য কোনো জায়গায় গিয়ে ব্যায়াম করাটা আরামদায়ক না। তাই ছোট পরিসরে নিজেই এ ব্যায়ামাগার দিয়েছি। তবে পাঁচ বছর হলে বড় পরিসরে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ব্যায়ামাগারটি ভিন্ন জায়গায় নেয়ার ইচ্ছে আছে। নিজের ওজন নিয়েও বেশ সচেতন তিনি। মাঝে তার ওজন ৬৩ কেজি হয়ে যাওয়ার পর তিনি তা কমিয়ে ৫৭ কেজিতে এনেছেন। বিভিন্ন ছবিতে অভিনয়ের খাতিরেই তার এই ওজনের ওঠানামা। সবশেষে নবাগত পরিচালক বুলবুল বিশ্বাসের ‘রাজনীতি’ ছবির কথা বললেন। এই ছবিতেও তার নায়ক শাকিব খান। তিনি জানালেন, শুরু থেকেই শাকিবের সঙ্গে কাজ করার পর দর্শক রেসপন্সটা ভালো দেখেছি। আমাদের এ জুটি দর্শক, হলমালিক, প্রযোজক সবাই বেশ পছন্দ করেন। তাই তার সঙ্গে জুটি হয়ে কাজ করা। আর আমার বিশ্বাস, ‘রাজনীতি’ ছবির পরিচালক নতুন হলেও তার কাজের ধরন, সেট ডিজাইন, লোকেশনসহ ছবির গান সবকিছু দর্শকরা বেশ পছন্দ করবেন। অপু সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এখনও এগিয়ে চলেছেন। মিডিয়াসংশ্লিষ্ট অনেকেরই প্রত্যাশা- অপুর এ এগিয়ে চলার পথটা আরও দীর্ঘ হোক ।

স্বকন্ঠে গান গাইলেন চিত্রনায়িকা শাবনুর

অভিনয়শৈলী আর রূপের মাধুরীতে তিনি জয় করেছে কোটি জনতার হদয়।

তবে তিনি যে চমৎকার গাইতেও পারেন তা হয়তো অনেকেই জানেন না।

বলছি জনপ্রিয় অভিনেত্রী শাবনূরের কথা।

দর্শকদের অনেকেই না জানলেও তার নিকটজনেরা জানেন না যে শাবনূর বেশ ভালো গাইতেও পারেন। এ কারণে তার গানের ভক্ত অনেক প্রযোজক, পরিচালক ও তারকা।

বেশ আগে থেকে প্লে-ব্যাক করার প্রস্তাবও পেয়েছেন, কিন্তু রাজি হননি। শুধু পারিবারিক অনুষ্ঠানগুলোতে গান করেন। তবে এবার শাবনূরের গাওয়া একটি গানের ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে ফেসবুকে।

৫ মার্চ এক প্রযোজকের জন্মদিনে আজম খানের ‘চুপ চুপ চুপ’ গানটি গেয়েছিলেন তিনি। সেটিই আপলোড করা হয়েছে বিভিন্ন পেজে।

শাবনূর বলেন, ‘এত দিন লুকিয়ে লুকিয়ে গান করেছি। কিন্তু এবার প্রকাশ হয়ে গেল। আমি ব্যক্তিগতভাবে আজম খানের ভক্ত। আমার বাসায় তার অনেক অ্যালবাম আছে। সময় পেলেই শুনি। বিশেষ করে ‘চুপ চুপ চুপ’ গানটি প্রায় সময় গুনগুন করে গাই।

জানি না ভিডিওটি দেখে কেউ সমলোচনা করছেন কি না! আসলে অনুষ্ঠানের হইচইতে অতটা মনোযোগ দিয়ে গাইতে পারিনি।’